চলে গেলেন মৌলভীবাজার এর প্রবীণ আলেম, প্রখ্যাত বুজুর্গ শায়খ মাওলানা শাহ আব্দুল মুঈদ রহ, (শাহসাহেব)।

প্রকাশিত: ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০২১

চলে গেলেন মৌলভীবাজার এর প্রবীণ আলেম, প্রখ্যাত বুজুর্গ শায়খ মাওলানা শাহ আব্দুল মুঈদ রহ, (শাহসাহেব)।

চলে গেলেন মৌলভীবাজার এর প্রবীণ আলেম, প্রখ্যাত বুজুর্গ শায়খ মাওলানা শাহ আব্দুল মুঈদ রহ, (শাহসাহেব)।
বুজুর্গ আলেম, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম মৌলভীবাজার জেলার অন্যতম উপদেষ্টা ,উস্তাদুল উলামা ,আল্লামা শায়খ আবদুল মুঈদ (শাহসাহেব) গত ২১,০৭,২০২১ ইংরেজী রোজ শুক্রবার মধ্যরাতে ইন্তেকাল করেন,
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর ।
একজন বিদগ্ধ আলেম ও খ্যাতিমান বুজুর্গ ছিলেন তিনি,দক্ষিণ কুলাউড়ায় বহু দ্বীনি প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার সাথে তিনি জড়িত ছিলেন , তার অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী ও গুণগ্রাহী দেশ বিদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন।
ব্যাক্তি জীবনে অত্যন্ত সাদামাঠা, ন্যায়পরায়ণ ও উত্তম চরিত্রের অধিকারী ছিলেন, বিশ্ব নবী সাঃ এর প্রতিটি সুন্নাহর প্রতি তার অগাদ ভালোবাসা ও আমাল ছিল সুদৃঢ়,
এতোদঞ্চলে দ্বীনি শিক্ষা বিস্তারে তার ভূমিকা ছিলো অপরিসীম, সমাজের সকল শ্রেণী পেশার লোকদের সাথে তার হৃদ্রতা ছিলো ।তাইতো তার মৃত্যুর খবরে পুরো এলাকা জুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে । শোকে বিহ্বল সর্বস্তরের এলাকার জনসাধারণ।

তিঁনি পাঁচ ছেলে দুই মেয়ে সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন , ছেলেরা সবাই আলেম ও সমাজে প্রতিষ্ঠিত,
এক ছেলে লন্ডন প্রবাসী, সেখানের মাসজিদে আল-মদীনার ইমাম ও খতীব তিনি এবং দারুর রাশাদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান, এ সংস্থাটি দেশে ইসলামিক প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি সময়ে সময়ে দেশের গরীব ও অসহায় মানুষের কল্যাণে সহযোগিতা করে থাকে, এছাড়াও তিনি জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী মহাসচিব, আরেক ছেলে কানাডা প্রবাসী, তিনিও একজন ভালো লেখক ও মুহাদ্দিস হিসেবে ইলমে দ্বীনের খিদমাত করে যাচ্ছেন।
বড় ভাই গৌছ আলী শাহ ছিলেন একজন অবসর প্রাপ্ত সরকারী অফিসার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা , ক’বছর আগে তিনি ইন্তেকাল করেন এবং রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে সমাহিত করা হয় ।

শাহসাহেব রহ, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান হওয়ার ফলে ইসলামিক মুল্যবোধ চর্চার পাশাপাশি তার দেশপ্রেম ছিলো অপরিসীম।

তার মৃত্যুতে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শায়খুল হাদীস মনসুরুল হাসান ,ও মহাসচিব ডঃ গোলাম মুহিউদ্দীন ইকরাম গভীর শোক জানিয়ে বলেন , শাহসাহেব রহ, এর ইন্তেকালে জাতী সত্যিকারের একজন কামেল বুজুর্গকে হারালো যা সহজে পুরণ হবার নয়, তারা মরহুমের দরজা বুলন্দি কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।